আল মুহসানাহ, আছ ছাবিরাহ, হুমায়রা, ত্বহীরা উম্মুল মু’মিনীন হযরত আয়িশা ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত জীবনী মুবারক
উসওয়াতুন হাসানাহ | ২১ শা’বান, ১৪৩৫ হি:

আল মুহসানাহ, আছ ছাবিরাহ, হুমায়রা, ত্বহীরা, ত্বায়্যিবাহ উম্মুল মু'মিনীন হযরত ছিদ্দীকা আলাইহাস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার তৃতীয়তম আহলিয়া। উনার পবিত্রতম নাম মুবারক হযরত আয়িশা আলাইহাস সালাম। মশহুর উপাধি বা ল০অক্বব মুবারক হচ্ছে ছিদ্দীক্বা ও হুমায়রা। আর পবিত্র কুনিয়াত বা উপনাম উম্মু আব্দিল্লাহ। উল্লেখ্য, ‘কুনিয়াত’ হয় কোনো সন্তানের নামের সাথে। উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার কোনো সন্তান ছিলেন না। তিনি উনার বোন হযরত আসমা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহা উনার ছেলে হযরত আব্দুল্লাহ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু যিনি ইতিহাসে হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে যুবাইর রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু নাম মুবারকে পরিচিত উনার নামে কুনিয়াত ধারণ করেন।

মূলতঃ তৎকালীন সময়ে আরবে ‘কুনিয়াত’ ছিল শরাফত ও আভিজাত্যের প্রতীক। অভিজাত শ্রেণীর লোকদের নাম ধরে ডাকার নিয়ম ছিল না। কুনিয়াত বা উপনামেই সম্বোধন করা হতো। ফলে একদিন উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম তিনি নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বললেন, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনার অন্য সম্মানিতা আহলিয়া আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের পূর্বের স্বামীদের সন্তানদের নামে নিজেদের কুনিয়াত ধারণ করেছেন, আমি কার নামে কুনিয়াত ধারণ করি? উত্তরে নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, আপনার বোনের ছেলে হযরত আব্দুল্লাহ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার নামে। সেই দিন থেকে উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার কুনিয়াত বা ডাকনাম হয় ‘উম্মু আব্দিল্লাহ’-আব্দুল্লাহ’র মা।

সূত্র : মাসিক আল বাইয়্যিনাত

বিষয় : হযরত উম্মুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম, উম্মুল মু’মিনীন, আখেরী নবী, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহিস সালাম, সম্মানিত, স্ত্রী, ছিদ্দীক্বা, হযরত, আয়েশা, আয়িশা, উম্মু আব্দিল্লাহ, জীবন
এই বিভাগ থেকে আরও পড়ুন
« পূর্ববর্তী| সব গুলি| পরবর্তী »